দৌলতপুরে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বসত বাড়িতে হামলা ভাংচুর

আব্দুল আলীম সাচ্চু: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার উত্তর উদয়নগর (মানিকের চর) গ্রামে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বসত বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে তারা বাহিনীর লোকজন। বিষয়টি স্থায়ীভাবে সুষ্ঠু সমাধান না হওয়ায় অবশেষে রবিবার আমজাদ হোসেন বাদী হয়ে তারা বাহিনীর প্রধান তারা ফকিরসহ ৬ জনকে বিবাদী করে দৌলতপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,আসামিদের সাথে জমি সংক্রান্ত দীর্ঘদিন শত্রুতা চলে আসছে। তারই জেরে গত শনিবার রাত আনুমানিক ৯টায় আমজাদ হোসেন এর বাড়ীতে তারা ফকির,শহিদুল,কহিনুর সহ ৫/৬ জন গিয়ে আমজাদ হোসেন সহ তার পরিবারের লোকজনকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ সহ বেধড়ক মারধর এবং ঘর বাড়ি ভাঙচুর করে ,তাতে বাধা দিতে গেলে প্রাণনাশের হুমকি দেয় তারা।

আমজাদ হোসেন বলেন,আমি আমার পরিবার সবসময় ভয়ভীতির মধ্যে বাসকরি। কখন কি ভাবে আমাকে ও আমার পরিবারের লোকজনকে বিবাদীগণ আক্রোস মূলক ক্ষতি সাধন করে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একব্যক্তি জানান এই তারা বাহিনীর সদস্যরা মানুষের হাজার হাজার বিঘা জমি জোরপূবক দখল করে পেয়ারা, কলা , বড়ই বাগান সহ পুকুর খনন করছে।

এরা রাতের আধারে গাজা, মদ, ফেনসিডিলের ব্যবসা করে,ভারত থেকে চোরায় মোটরসাইকেল এনে বিক্রি করে, এর কেউ প্রতিবাদ করলে তার উপর হামলা সহ বিভিন্ন ভাবে ক্ষতি করার চেষ্টা করে। এর আগে একজন মুক্তিযোদ্ধা প্রতিবাদ করলে তার জমির সব ফসল কেটে নেই এবং তার ছোট ভাইকে মেরে মাথা ফাটায়। ভুক্তভোগী পরিবার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।