দৌলতপুরে ১০৩ বতল ফেন্সিডিল ও ৬ শত গ্রাম গাজাঁ উদ্ধার

232

দৌলতপুর প্রতিনিধি ঃ কুষ্টিয়া দৌলতপুর থানা পুলিশের অভিযানে বুধবার বিকাল অনুমানিক সাড়ে ৪ টার দিকে ১০৩ বতল ফেন্সিডিল ও ৬ শত গ্রাম গাজাঁ উদ্ধার হয়েছে। পুলিশ জানায়, বুধবার বিকালে এস আই আলমগীর হোসেন, এস আই মুরাদুল ইসলাম, এ এস আই শাহীনুর রহমান, এ এস আই আমিনুর রহমান সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে থানা এলাকায় গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযান ডিউটি করাকালীন সময়ে মথুরাপুর বড় বাজারে অবস্থান কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মথুরাপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত তোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে রেজার বাড়ীর ভিতরে মাদক ক্রয় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে কয়েকজন লোক অবস্থান করিতেছে।

সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে অফিসার ইনচার্জকে অবহিত করিলে, অভিযান চলা কালিন সময়ে অফিসার ইনচার্জ আরিফুর রহমান ও এস আই রাজিব উপস্থিত হন। পুলিশের উপস্থিতি টের পাওয়া মাত্র দুইজন লোক দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে, বাগুয়ান হীসনা পাড়া গ্রামের শফিজ মন্ডলের ছেলে কাকন কে আটক করে। কাকনের দেওয়া তথ্যমতে রেজার বসত বাড়ির আঙ্গীনার মাটির নিচে পোতা বস্তার ভিতর বাঁধা অবস্থায় ১০৩ বতল ফেন্সিডিল ও বসত ঘরের ভিতর থেকে ৬ শত গ্রাম গাজাঁ উদ্ধার হয়।

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ আরিফুর রহমান জানান, পুলিশ সুপার এস এম তানভির আরাফাত এর নির্দেশক্রমে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে রেজার বসত বাড়ির আঙ্গীনার মাটির নিচে পোতা বস্তার ভিতর বাঁধা অবস্থায় ১০৩ বতল ফেন্সিডিল ও ঘরের ভিতর থেকে ৬ শত গ্রাম গাজাঁ উদ্ধার করা হয়েছে। এবং কাকন নামে একজন কে আটক করা হয়েছে। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তাদের নামে দৌলতপুর থানায় মামলা হয়েছে। তিনি আর জানান মাদকের জন্য আমার কাছে কোন ছাড় নাই। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে।