পদোন্নতি পেয়ে এএসপি হলেন সাহসী পুলিশ অফিসার আজম খান ।

নিজস্ব প্রতিনিধি: সহকারী পুলিশ সুপার-এএসপি হিসেবে পদোন্নতি পেলেন সাহসী পুলিশ অফিসার হিসেবে খ্যাত আজম খান। সাতক্ষীরা জেলায় দীর্ঘদিন ধরে কর্মরত এই খ্যাতিমান পুলিশ ইন্সপেক্টর পদোন্নতি পাওয়ায় সাংবাদিক মহলসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংষ্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অভিনন্দন জানিয়েছেন।

আজম খান ১৯৯০ সালে সরাসরি সাব ইন্সপেক্টর হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। ট্রেনিং শেষে ১৯৯১ সালের আগস্ট মাসে সাতক্ষীরার আশাশুনি থানায় শিক্ষানবিস সাব ইন্সপেক্টর হিসেবে যোগদান করে অল্পদিনেই সুনাম অর্জন করেন। তার বাড়ি যশোর শহরে।

১৯৯৪ সালে চরমপন্থী সন্ত্রাসীদের অভায়ারণ্য হিসেবে পরিচিত তালা থানায় যোগদান করেন তিনি। এই থানায় যোগদানের পর থেকে অপরাধিদের কাছে মুর্তিমান আতংকে পরিণত হন তরুণ এই সাব ইন্সপেক্টর। তার হাতে কোনো সন্ত্রাসী গ্রেফতার হলে বাকী জীবনে আর অপরাধের খাতায় নাম লেখাতে সাহস পেত না সে।

সেই সময়ে বহু চরমপন্থি সন্ত্রাসী ও ডাকাত গ্রেফতার করেন তিনি। থানার দক্ষিনে জেঠুয়া-জালালপুর এলাকায় রাতের অন্ধকারে একা ৫কিলোমিটার ধাওয়া করে ডাকাত ধরার ঘটনাটি আজও মানুষের মুখে মুখে। তরুণ এই পুলিশ অফিসার তার কর্মদক্ষতা ও সাহসীকতার জন্য সন্ত্রাসীদের “জম” হিসেবে খ্যাতি পান।পও

১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে গোয়েন্দা বিভাগে (এসবি) যোগদান করেন। ২০০০ সাল পর্যন্ত তিনি সেখানে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন।

২০০৫ সালে ইন্সপেক্টর হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে আজম খান তার পুরোনো কর্মস্থল তালা থানায় ওসি হিসেবে যোগদান করেন। সন্ত্রাস কবলিত এই থানাটি অল্পদিনেই সন্ত্রাসমুক্ত হয়।

ওই বছরই তালা থানা ভেঙ্গে নতুন আরেকটি থানা হয় পাটকেলঘাটা। তিনি পাটকেলঘাটা থানার ওসি হিসেবে যোগদান করেন। চোরাচালান আর মাদকের আখড়া হিসেবে পরিচিত পাটকেলঘাটার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়িরা তাকে বদলী করার জন্য মোটা অংকের টাকার ফান্ড গঠন করে সেই সময়। কয়েকমাস পর তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ও উপজেলা বিএনপির প্রভাবশালী নেতা বদরুজ্জামান বদরুল কে আটক করার কারণে তৎকালীয় বিএনপি দলীয় এমপি হাবিবুল ইসলাম হাবিবের রোষানলে পড়ে বদলী হন।

২০০৮ সালে সাহসী এই পুলিশ কর্মকর্তা জাতিসংঘ শান্তি মিশনে পুর্ব তিমুরে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৯ সালের নভেম্বর মাসে দেশে ফিরে আসেন। এরপর সন্ত্রাস কবলিত কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা থানার ওসি হিসেবে যোগদান করেন।
পরে সাতক্ষীরা জেলা গোয়েন্দা বিভাগে (এসবি) যোগদান করার পর একটানা কয়েক বছর দায়িত্ব পালন করেন।

সর্বশেষ জেলা পুলিশের আরওআই হিসেবে দায়িত্বরত থাকা অবস্থায় বিসিএস পুলিশ ক্যাডার হিসেবে সহকারী পুলিশ সুপার-এএসপি পদে পদোন্নতি পেয়েছেন। শিগগির তিনি তার নতুন কর্মস্থল খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশে যোগদান করবেন বলে জানা গেছে।