প্রধানমন্ত্রীর সেবা মুলক নির্দেশনার পর ছাত্রলীগ এর উদ্যোগ এ মেহেরপুরে পানির ট্যাংক স্থাপন করতে গেলে মেয়রের বাধা।

প্রতীকী ছবি

প্রধানমন্ত্রীর সেবা মুলক নির্দেশনার পর ছাত্রলীগ এর উদ্যোগ এ গতকাল করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মেহেরপুর জেলা সদরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পানির ট্যাংক স্থাপন করতে গেলে মেহেরপুর জেলা সদর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন বাধা দেয় এবং ছাত্রলীগ এর সদস্যদের লাঞ্চিত করে। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। দেশের এরকম পরিস্থিতিতে ছাত্রলীগকে পানির ট্যাংক স্থাপন করে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সহায়তা করতে না দেয়ার কারন উপস্থিত ব্যক্তিবর্গ ও গন্যমান্য কারোরই বোধগোম্য নয়। এ নিয়ে ছাত্রলীগ একটি বিবৃতি দিয়েছে।

মেহেরপুর বড়বাজারে (কাঁচা বাজার) করােনা মােকাকেলায়  গণসচেতনা মূলক জনসমাগম এলাকায় মেহেরপুর কলেজ শাখার সৌজন্যে
হাত ধোঁয়ার একটি পানির ট্যাংক অস্থায়ীভাবে স্থাপন করা নিয়ে মেয়রে সাথে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আদিব হোসেন আসিফের সাথে বাকবিতন্ডা সৃষ্টি হয়।

তার পরিপ্রেক্ষিতে মেহেরপুর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে সভাপতি আদিব হোসেন আসিফ ও সাধারণ সম্পাদক কুতুব উদ্দীন আহমেদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস রিলিজ দেওয়া হয়।

প্রেস রিলিজে তারা বলেন, বিশ্বব্যাপি আতংকের নাম হচ্ছে করােনা ভাইরাস, আর এই করােনা ভাইরাসের প্রথম করনীয় হাতকে পরিস্কার এবং জীবানু মুক্ত করার হীন মানসিকতা দেখিয়েছেন এবং ট্যাংক অপসারণ করার যে অপচেষ্টা করেছেন , তার তীব্র
প্রতিবাদ করছি । মেয়র বলেছেন , আমরা নাকি পরিবেশ নষ্ট করছি, এখন আপনাদের কাছে প্রশ্ন ভাইরাসকে মােকাবেলায় রাস্তায় আগত জনগনের জন্য কলেজ ছাত্রলীগের এই উদ্যোগটা কি খারাপ  ? এত বড় বাজারে জনগণের হাতকে সুরক্ষা রাখতে আপনি কি ব্যাবস্থা রেখেছেন , এই প্রশ্ন করলে মেয়র বলেন, আমাকে কেউ বলেনি তখন উপস্থিত সকলে বলেন মেয়রকে তাহলে এই সংকটময়
পরিস্থিতিতে আপনার করনীয় কি? সদুত্তর দিতে না পেরে মেয়রের এই ধরনের আচরণে আমরা কলেজ ছাত্রলীগ এর তীব্র প্রতিবাদ করছি।