1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
সামিট এন্ড বিজনেস এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডে রিয়েল এষ্টেট ক্যাটাগরিতে এমারজিং ডেভেলপার অফ দ্যা ইয়ার পদকপ্রাপ্ত হয়েছে রিয়েল ক্যাপিটা গ্রুপ বোয়ালমারীতে ৪৮ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো বিকাশ চক্র দশমিনায় খালে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধোন করায় মানববন্ধন। ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ : ইতিহাসের কলঙ্কিত অধ্যায়  ফরিদপুরে বিশ্ব নদী দিবস পালন বাবার লাশ বাড়িতে রেখে এস এসসি পরিক্ষা দিলো রানা প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা।  বোয়ালমারীতে দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে থানা পুলিশের মতবিনিময়সভা দশমিনায় নদী দিবস-২০২২ উদযাপন।  নিখোঁজের ২৯ দিনন পর এক নারী বোয়ালমারী থেকে উদ্ধার

সালথায় দুই সন্তানের জননী চাচীকে নিয়ে ইউপি সদস্য উধাও 

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের সালথায় ২ সন্তানের জননী সম্পর্কে চাচীকে  নিয়ে উধাও হয়েছে প্রতিবেশী ইউপি সদস্য নুরুল আলম নামের এক ব্যক্তি। প্রেমের টানে  হাত ধরে উধাও হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে ফরিদপুরের সালথা উপজেলার মাঝারদিয়া গ্রামে।
জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার (৭ জুন) রাত দুইটার দিকে উপজেলার মাঝারদিয়া ইউনিয়নের গোলপাড়া গ্রামের মৃতঃ  সামাদ মোল্লার ছেলে  জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী। প্রতিবেশী মৃত্যু মঈনউদ্দিনের ছেলে  ইউপি সদস্য নুরুল আলমের সাথে প্রেমের টানে নিরুদ্দেশ হয়।
এ ঘটনায় গৃহবধুর স্বামী জাহিদুল ইসলাম (৪০) বুধবার (৮ জুন) দুপুরে সালথা থানায়  নিখোঁজ সংক্রান্ত একটি সাধারন ডায়েরি করেন ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইউপি সদস্য নুরুল আলমের সম্পর্কে লাবনী বেগম চাচী হত। দীর্ঘদিন ধরে জাহিদের বাড়িতে যাওয়া আসা করত নুরুল আলম। আমরা জানতে পেরেছি গতকাল রাতে নুরুল আলমের হাত ধরে জাহিদের স্ত্রী লাবলী পালিয়ে গেছে।
এদিকে  ছোট ছোট দুটি কন্যা সন্তান রেখে মায়ের উধাও এর খবরে বড় মেয়ে মারিয়া আক্তার ৯ বছর বয়সী ও ছোট মেয়ে ফারিয়া আক্তার ৫ বছর বয়সী ভেঙ্গে পড়েছে।  মেয়ে দুটি কে নিয়ে বিপাকে পড়েছে জাহিদুল।
জাহিদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার যা কিছু ছিল তার সবকিছুই নিয়ে নুরুল আলমের সাথে চম্পট দিয়েছে জাহিদের স্ত্রী লাবনী। ঘরে নেই টাকা পয়সা, তার উপর ছোট কন্যার মায়ের শোকে অনাবর্ত কান্না, আর বড় মেয়ের অসহায় চাহনীর কাছে জাহিদুল একান্ত অসহায় কিংকর্তব্যবিমূঢ়।
এ ব্যাপারে জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমার স্ত্রী লাবনী রাত দুইটার দিকে টয়লেটে যাওয়ার জন্য ঘর থকে বের হয়। টয়লেট থেকে আসতে দেরি হওয়ায় আমি খুজতে ঘর থেকে বের হয়ে দেখি আমার স্ত্রী টয়লেটে নাই পরে আমার পরিবারের সকলে মিলে বাড়ির আশেপাশে খুঁজাখুঁজি করে কোথাও তাকে পাই নাই।
জানা গেছে, প্রায় ১০ বছর পূর্বে  উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের সিংহপ্রতাপ গ্রামের মোঃ মোফাজ্জল খালাসির কন্যা লাবনী আক্তারের সাথে ইসলামী শরিয়ত মোতাবেক জাহিদুল ইসলামের বিবাহ হয়।
এ বিষয় ,  সালথা থানার চার্জ অফিসার এস আই  আওলাদ হোসেন বলেন,  এ বিষয়ে ওই গৃহবধুর স্বামী একটি নিখোঁজ  সংক্রান্ত সাধারণ ডায়েরি করেছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ