কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের সামনে রাস্তার জায়গা দখল করে স্থাপনা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে।

269

কুষ্টিয়া অফিস: কুষ্টিয়া শহরের ঢাকা রোডের নির্মানাধীন কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের সামনে রাস্তার জায়গা দখল করে স্থাপনা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে নমনির্মিত কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের মূল গেটের সামনে বালি ফেলে জায়গা দখলের মহাৎসব চলছে।

যে জায়গাটিতে বালি ফেলে দখল করা হচ্ছে সেটি মূলত রাস্তার জায়গা। এই রাস্তার সাথে হাউজিং ডি, ই, এফ বøক, কালিশংকরপুর, হরিশংকরপুরসহ কুষ্টিয়া শহরবাসীর কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজে যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা এটি। বিকল্প কোন রাস্তা নেই। একটি মহল এই জনগুরুত্বপূর্ন রাস্তাটি দখল করে স্থাপনা নির্মানের তোড়জোড় শুরু করেছে।

স্থানীয়রা জানাচ্ছেন হাইজিং চাঁদাগাড়া মাঠ হয়ে মেডিকেল কলেজে যাওয়ার একমাত্র রাস্তা এইটা। গত জাতীয় নির্বাচেনের আগে এই রাস্তা দখল করে স্থাপনা নির্মানের চেষ্টা করলে কুষ্টিয়া পৌরসভার তৎপরতায় সেটি ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেওয়া হয়। আবার নতুন করে মহলটি জায়গাটি দকল করে স্থাপনা নির্মানের চেষ্টা করছে। একটি প্রভাবশালী মহলের তৎপরতায় ভাড়াটে কিছু মাস্তানকে দখল বাণিজ্য সম্পূর্ন করতে মোটা অংকের টাকা বিনিয়োগ করেছে দখলকাজের সাথে যুক্ত মহলটি। জায়গার বিবরন দিয়ে কুষ্টিয়া পৌরসভার সার্ভেয়ার আব্দুল মান্নানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এই প্রতিবেদককে জানান, জায়গাটি দিয়ে জনগুরুত্বপূর্ন একটি রাস্তার নকশা আছে। কুষ্টিয়া পৌরসভা এই জায়গাটি অধিগ্রহন পূর্বক রাস্তার জায়গা সম্প্রসারন করবে।

এর আগেও এই জায়গায় বালি ফেলে দখল করার চেষ্টা করেছিলো একটি মহল, তখন কুষ্টিয়া পৌরসভার পক্ষ থেকে সেখানে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে জায়গাটি দখলমুক্ত করা হয়। কুষ্টিয়া পৌরসভার পক্ষ থেকে আবারও জায়গাটি দখল করা হবে বলেও জানান সার্ভেয়ার আব্দুল মান্নান।

স্থানীয় এক ব্যক্তি জানান, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ চালু হলে এই রাস্তাটি অতিগুরুত্বপূর্ন রাস্তা হিসেবে ব্যবহৃত হবে। কুষ্টিয়া শহরের বাসিন্দাদের মেডিকেলে যাওয়ার জন্য একমাত্র রাস্তা এইটা। জনগুরুত্বপূর্ন এই রাস্তাটি বার বার দকল করার চেষ্টা করছে মহলটি। রাস্তা দখলের বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রশাসন, কুষ্টিয়া পৌরসভাসহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে স্থানীয়রা।