আব্দুর রাজ্জাকের ১০ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে মিলাদ মহাফিল অনুষ্ঠিত

81

মো মাহামুদুল্লাহ সোহেল ভেড়ামারা প্রতিনিধি:- কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, বাহাদুরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পর পর ৬ বার নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান, জনপ্রিয় রাজনৈতিক মোঃ আব্দুর রাজ্জাকের আজ ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০০৯ সালের এই দিনে দুরারোগ্যে আক্রান্ত হয়ে তিনি ইন্তেকাল করেন।

তার এই আকষ্কিক মৃত্যুতে তৎকালীন সময়ে বাহাদুরপুরবাসী হতাশ হয়ে পড়েছিলেন এবং ভেড়ামারাবাসী হারিয়েছিল সৎ, সাহসী, ন্যায় বিচারক, নির্ভিক এবং দানশীল এক জনপ্রিয় রাজনৈতিক কে। ২০০৯ সালের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর পর মাত্র ৫ মাসের মাথায় দুরারোগ্যে আক্রান্ত হয়ে তিনি ইহলোকের মায়া ত্যাগ করে চলে যান। জনপ্রিয় এই রাজনৈতিক আব্দুর রাজ্জাক আজো ভেড়ামারাবাসীর অন্তরে রয়েছেন।

বাবার হাত ধরে তার সুযোগ্য সন্তানরাও এখন জনপ্রতিনিধি এবং বাবার দেখানো পথেই বাহাদুরপুর ইউনিয়ন বাসী তথা ভেড়ামারাবাসীর সেবা করে চলেছেন। মরহুমের ১০ম মৃতুবার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আখতারুজ্জামান মিঠু সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক’র প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন, চেয়ারম্যানের বর্ণাঢ্য জীবনী নিয়ে আলোচনা এবং দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছেন। এছাড়াও পরিবারের পক্ষ থেকে কোরআন খতম, কবর জিয়ারত, আলোচনা সভা, কাঙ্গালী ভোজ এবং বিশাল ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। দিনব্যাপী এসব অনুষ্ঠান কুচিয়ামোড়াস্থ বাসভবন এবং কুচিয়ামোড়া ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। এসব অনুষ্ঠানে দলে দলে যোগদান করার জন্য আব্দুর রাজ্জাক চেয়ারম্যানের বড় ছেলে বাহাদুরপুর ইউনিয়ন পরিষদ’র সাবেক চেয়ারম্যান সোহেল রানা পবন, মেজ ছেলে ভেড়ামারা বিজেএম ডিগ্রী কলেজ পরিচালনা পরিষদের সদস্য ও বিজেএম স্যাটেলাইট ক্যাবল নেটওর্য়াকের মালিক রুবেল মাহমুদ রতন এবং ৪র্থ পুত্র ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান বুলবুল হাসান পিপুল ভেড়ামারাবাসী কে অনুরোধ জানিয়েছেন।