1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কুষ্টিয়ায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী বাপ্পি আটক। ভেড়ামারায় জমি জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ভাই ও বোনজামাইয়ের বিরুদ্ধে মিথ্যা ডাকাতির অভিযোগ টাকার অভাবে চিকিৎসা বন্ধ কিডনি রোগে আক্রান্ত শিশু আয়শা মনির।  জুলাই মাসে হচ্ছেনা এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা বোয়ালমারীতে ট্রাকের চাপায় মা-মেয়ে নিহত ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করায়  টাঙ্গাইলের এক শিক্ষার্থীকে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ। বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর দাড়িয়ে থাকা পিকআপকে অপর পিকআপের ধাক্কা, চালক নিহত। শিক্ষক হত্যা ও লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা। বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর দাড়িয়ে থাকা পিকআপকে অপর পিকআপের ধাক্কা, চালক নিহত। দশমিনায় অবৈধ বালু উত্তোলনে তিনটি বলগেট আটক ও তিনজকে জরিমানা।

রাজশাহীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে কে হচ্ছে সভাপতি-সম্পাদক? 

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১ জুন, ২০২২
রাজশাহী ব্যুরোঃ দিন যতই যাচ্ছে জাতীয় নির্বাচনের উত্তেজনা যেন ততই বাড়ছে। আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের  প্রতিটি অঙ্গ-সংগঠনকে  সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে একের পর এক সম্মেলন করছে দলটি। তাই রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগকেও শক্তিশালী এবং  সুসংগঠিত করতে ত্যাগি ও পরিশ্রমি নেতার সন্ধানে কেন্দ্রীয় নীতিনির্ধারকেরা। এরই ধারাবাহিকতায় রাজশাহীতে কয়েকদফা সাধারণ সভা ও বর্ধিতসভা করেছে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের শেষ সম্মেলন হয়। সেই সম্মেলনে আব্দুল মমিন ও জেডু সরকারকে নেতৃত্বের আসন দিয়ে ৩ বছর মেয়াদি কমিটি গঠিত হয়। কিন্তু সেই কমিটির ৩ বছর মেয়াদ পার হলেও অলৌকিক কারন দেখিয়ে  আজও নতুন কমিটির মুখ দেখেনি সংগঠনটি। দীর্ঘদিন থেকে সংগঠনটির নতুন কমিটি না হওয়ায়,  এর কার্যক্রমও অনেকটায় ঝিমিয়ে পড়েছে। তবে ঝিমিয়ে পড়ার পেছনে কিছু কারনও রয়েছে। সভাপতি আব্দুল মমিন তিনি বর্তমানে একজন ওয়ার্ড কাউন্সিলর  অর্থাৎ জনপ্রতিনিধি। তিনি সারাদিনের কিছু সময় দেন সিটি কর্পোরেশনে আর কিছুটা সময় তার নিজ নির্বাচনী এলাকার জন সাধারণের সাথে।  অর্থাৎ তিনি প্রতিদিনের বেশির ভাগ সময় এই দিকে ব্যয় করেন। যার কারনে সংগঠনকে সময় দেওয়া তার জন্য অনেকটায় কষ্টসাধ্য ব্যপার হয়ে যায়। অপর দিকে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ পদ,  সাধারণ সম্পাদক। এই পদটিতে রয়েছে জেডু সরকার। তিনিও তার সারাদিনের সময় পার করেন ঠিকাদারি নিয়ে।  সংগঠনটির আরও গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা সকলেই নিজেদের চাকরি ও ব্যবস্যা নিয়ে ব্যাস্ত থাকেন। এরকম বিবিধ কারনে সংগঠনটির কর্যক্রম নেই বললেই চলে। তবুও সংগঠনটির সম্মেলন দিতে অনিহা বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের এমনটায় অভিযোগ তৃনমুলের। ঝিমিয়ে পড়া সেই সংগঠনকে চাঙ্গা ও শক্তিশালী করতে প্রথমেই ওয়ার্ড ও থানা কমিটির উপর গুরুত্ব দেন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।  গত ২১ মে মহানগর আওয়ামী লীগের পার্টি অফিসে বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত হয় এবং আগামী ১৯ জুন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনের প্রস্তুতি নিলেও পরবর্তিতে দুইদিন পিছিয়ে ২১ জুন করা হয়। অর্থাৎ আগামী ২১ জুন হচ্ছে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন। ইতিমধ্যে পুরো নগরী জুড়ে ব্যানার ফেষ্টুনে ভরে গেছে। এবার দেখার পালা কে হচ্ছে সভাপতি – সম্পাদক!
তবে আগামী সম্মেলনে  ডজন খানেক পদ প্রত্যাশী থাকলেও (প্রতিবেদন লিখা পর্যন্ত) সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে মাঠে রয়েছে  মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রকি কুমার ঘোষ ও সাংগঠনিক সম্পাদক মহিদুল ইসলাম মোস্তফা। এছাড়াও সভাপতি পদ প্রত্যাশী রয়েছেন,  মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকার ও দপ্তর সম্পাদক অরোবিন্দ দত্ত। সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশী রয়েছেন, বর্তমান স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক সুলতানুর আরেফিন, মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজিব। তবে স্বেচ্ছাসেবকের বর্তমান কমিটির যেটুকু  কর্যক্রম রয়েছে তা অনেকটায় আরেফিনের কারনে। গত ৫  বছরে আরেফিন ব্যাপক দিচ্ছেন সংগঠনকে।  বর্তমান স্বেচ্ছাসেবক লীগের চলমান কমিটির সফলতা ও ব্যার্থতা নিয়ে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকারের সাথে  মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি সময় দিতে পারবেন না বলে সাফ জানিয়েছেন। এতে বোঝাযায় তিনি তার সাংগঠনিক ব্যর্থতাকে আড়াল করতেই এমন কৌশল অবলম্বন করছেন। অথচ এই পদটিকে ব্যবহার করে সরকারের প্রতিটি দপ্তরে ঠিকাদারির রাম রাজত্ব কায়েম করছেন তিনি। আবার শোনাযাচ্ছে তিনি নাকি আগামী সম্মেলনে সভাপতি পদ প্রত্যাশী। আগামী নেতৃত্বে সংগঠনকে কতটুকু সময় দিবেন এ নিয়ে প্রশ্ন এখন সকলের। এতটা ব্যস্ততার মাঝে কিভাবে সংগঠনকে সময় দিবেন এই নিয়ে কঠিন সমালোচনা তৃনমূল কর্মীদের মাঝে। তবে আগামী সভাপতির নির্মল বাতাস বইছে নতুনের দিকে। আর নতুন নেতৃত্বের হাতছানি হিসেবে রকি কুমার ঘোষের নাম
সবার উপরে। রকি কুমার ঘোষ ২০০২ সালে (৮ম শ্রেণীতে পড়ে) অর্থাৎ স্কুল জীবন থেকেই বঙ্গবন্ধুর আর্দশে আদর্শীত হয়ে ছাত্র রাজনীতির অশ্বারোহী হন। লাগামহীন রাজনীতির মাঠে কোন বাধাই আটকাতে পারেনি রকি’কে। ২০০২ থেকে ১১ সাল পর্যন্ত বহু সামাজিক সংগঠন ও আওয়ামী ছাত্র সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন। অবশেষে ২০১১ সালের ১৪ মে রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে নির্বাচত হয়। পরবর্তিতে ২০১৪ সালের ১০ সেপ্টেম্বরে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়। ২০২১ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারী সম্মেলনের মধ্যদিয়ে ছাত্রলীগের নেতৃত্ব হস্তান্তর করে। এবার ২০২২ সালের ২১ জুন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে সভাপতির পদে নিজেকে তুলে ধরছেন। আগামী সম্মেলন নিয়ে রকি কুমার ঘোষের অনেক কথা থাকলেও তার মুল কথা আমার রাজনৈতিক অভিভাবক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য ও বর্তমান রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ভাই। তিনি যা বলবে আমি সেটাই করবো বা মেনে নিব।
অপর দিকে আরেক ত্যাগি ও পরিশ্রমি নেতা মহিদুল ইসলাম মোস্তফা। তিনি দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে থাকলেও ২০০৬ সালে মহানগর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদ পান। এরপর ২০১০ সালে মমিন -জেডুর  স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী হিসেবে কাজ করেছেন। এবার আগামী সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে নিজেকে তুলে ধরছেন। সাধারণ সম্পাদকে আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী  তিনি বর্তমানে চলমান কমিটির মহিলা সম্পাদিকা। তিনিও ছাত্রলীগ থেকে উঠে এসেছেন। তিনি ২০০৫ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন। ২০১০ সালে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ১ হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন। পরবর্তীতে ২০১২ সালে স্বেচ্ছাসেবক লীগের মহিলা সম্পাদিকা পদ পান। আগামী সম্মেলন নিয়ে কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক (রাজশাহী বিভাগের দ্বায়িত্বে) শাহজালাল মুকুল এর সাথে কথা বললে, তিনি বলেন, বর্তমান রাজশাহী জেলার প্রতিটি উপজেলার সম্মেলন নিয়ে ব্যাস্ত দিন যাচ্ছে। আগামী ২১ জুন মহানগরের সম্মেলন হবে। আগামী সম্মেলনে কতজন ও করা করা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা এখন বলা যাবে না। আগামী ১০ জুন সিভি জমা দেওয়ার শেষ দিন।  তারপর বলা যাবে শেষ পর্যন্ত কতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। আগামী সম্মেলনের আগে নগরীর থানা সম্মেলনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আগামী সম্মেলনকে  সফল ও সুন্দর করতে সকলের সম্মিলিত সহযোগিতা প্রয়োজন। বিঃদ্রঃ ৩১ মে সম্মেলন প্রস্তুতি সভা করা হয়েছে এবং প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ