1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
ময়মনসিংহে জেলা পুলিশের উদ্যোগে করোনা সংক্রমণরোধে মাস্ক বিতরণ গাংনীতে আইডিয়াল ফাস্ট এইট ট্রেনিং সেন্টারের সনদ ও পুরস্কার বিতরণ রাসিক মেয়রের সুস্থ্যতা চেয়ে দোয়া মোনাজাত করেছেন রুয়েট কর্মচারী সমিতি দশমিনায় হলুদে হলুদে কৃষকে মাঠ দশমিনায় রাস্তাারপাশে ঝুঁকিপূর্ন মরা গাছ সরকার হারাচ্ছে রাজস্ব আদিবাসীদের উন্নয়নে আওয়ামীলীগ সরকারের বিকল্প নেই. এমপি ছলিম নাগরপুরে শিশু আফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু লক্ষ্মীপুরের শপথের আগেই মৃত্যুবরণ করেন নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান শার্শায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে দীর্ঘ ২০ দিন যাবৎ বিছানায় ছটফট করছে এক গৃহবধূ রাজশাহীতে মসজিদে হামলার ঘটনাটি গুজব ছিল: মসজিদে স্বীকারোক্তি

সুষ্ঠু তদারকির অভাবে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে কালিদাসপুর কমিউনিটি ক্লিনিক

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৪ জুন, ২০২১

দৌলতপুরে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় ঝোপঝাড়ের বাসস্থানে পরিণত হয়েছে কালিদাসপুর কমিউনিটি ক্লিনিক।


ডেইলি নিউজ বাংলা ডেক্স: চিকিৎসক নেই। তাই চিকিৎসা সেবা না পেয়ে বিভিন্ন বয়সী রোগীরা ফিরে যাচ্ছেন। কর্তব্যরত সিএইচসিপির অবহেলা আর অনুপস্থিত থাকা ও সুষ্ঠু তদারকির অভাবে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ১৪ আড়িয়া ইউনিয়নের কালিদাসপুর কমিউনিটি ক্লিনিক।

এলাকাবাসীর ভাষ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে কমিউনিটি ক্লিনিকের গুরুত্ব দিয়েছেন। কিন্তু অসাধু কিছু সিএইচসিপির কারণে ভেস্তে যেতে বসেছে স্বাস্থ্যসেবা।সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের কালিদাসপুর কমিউনিটি ক্লিনিকটি বন্ধ রয়েছে।

কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) মোঃ শিহাব হোসেন অনুপস্থিত রয়েছেন  প্রায় ৩বছর ধরে। এতে গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্য সুরক্ষাসহ গ্রামীণ শিশু, নারী ও সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম ব্যাপকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে আশপাশ থেকে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের। তাছাড়া নিয়মিত তদারকি নেই বলে অভিযোগ করেছেন এলাকা বাসী।

এলাকার বাসিন্দা রজিনা খাতুন, আকলিমা খাতুনসহ একাধিক ব্যক্তি জানান,এর আগে প্রতিদিন অসংখ্য রোগী সেবা নিতে আসতো। কিন্তু সিএইচসিপি শিহাব থাকেন না প্রায় ৩বছর। উনার পরিবর্তে মাঝে মধ্যে একজন সিএইসসিপি আসেন তবে কখন আসেন আর কখন যায় সেটা এলাকার অধিকাংশ মানুষই অবগত নন। বেশিরভাগ সময়ই এই ক্লিনিক বন্ধ থাকে। সিএইচসিপি শিহাব এর ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.তৌহিদুল হাসান তুহিন জানান,এবিষয়ে আমাদের কাছে এলাকাবাসি একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে, আমরা সেখানে যেয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। সেখানে  আপাতত অন্য একজন সপ্তাহে তিন দিন ডিউটি করছে। এ বিষয়টি আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ