1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
দৌলতপুর সীমান্তে বিজয়া দশমীকে ঘিরে দুই বাংলার মিলন মেলা এমপি’র বাসা থেকে চুরি করে পালিয়ে যাওয়া গৃহকর্মী দশমিনায় ৯ দিনপর আটক  রাজশাহীতে যাত্রা শুরু করলো “রাজশাহী অনলাইন সাংবাদিক ফোরাম” নাগরপুর উপজেলাধীন বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন জননন্দিত নেতা তারেক শামস খান হিমু। বোয়ালমারীতে ডিসির পূজামন্ডপ পরিদর্শন রাকাব স্থানীয় মুখ্য কার্যালয়ে মাসব্যপী আমানত সংগ্রহ-২০২২ এর উদ্বোধন পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর দশমিনা উপজেলায় মতবিনিময় সভা দশমিনায় জাতীয় কন্যা দিবস উদযাপন দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী। দৌলতপুর দেওয়ানী আদালত পরিদর্শন করলেন বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমান

দশমিনায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ আভিযান

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২

মোঃবেল্লাল হোসেন
দশমিনা(পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালী দশমিনা উপজেলায় গত বুধবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. মহিউদ্দিন আল হেলাল উপজেলার সদরের বাজারে অভিযান চালিয়ে টলঘরে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করেন।
জানা যায়, দীর্ঘদিন উপজেলার সদরের দুটি সরকারি অর্থায়নে নির্মানাধীন টল ঘর কিছু অসাধু ব্যবসায়িরা দখল করে লেয়ার ও বয়লার মুরগিন ব্যবসা করে আসছে। দুটি টল ঘর নির্মান করা হয়েছে মাছ ব্যবসায়ীদের জন্য কিন্তু কয়েকজন অসাধু ব্যক্তিরা অবৈধ ভাবে লাভবান হওয়ার জন্য অতিরিক্ত টাকার বিনিময়ে মুরগির খাচা, লেয়ার ও বয়লা মুরগি ও দেশি মুরগি বিক্রির জন্য ১২-১৩ টি দোকান স্থাপনের সুযোগ করে দেয়। এতে করে বাজারে আসা ক্রেতাগন বিকৃত দূর্গন্দ ও নান ভাবে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের সমূক্ষিন হন। এ বিষয়ে মাছ বাজারে আসা ব্যক্তি গন জনস্বার্থে উপজেলা নির্বাহী আফিসার বরাবর এ সকল দোকান উচ্ছেদের অভিযোগ আনায়ন করলে প্রাথমিক ভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাদের দোকান অন্যত্র সরিয়ে নেবার নির্দেশ দেন। নির্বাহী আদেশ অমান্য করায় গত বুধবার বিকেল থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ সকল দোকান ঘর উচ্ছেদ করে সরকারি জায়গা পরিস্কার করা হয়। এ অভিযান পরিচালনার সময় কোন দোকান মালিককে পাওয়া যায়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, দশমিনা সদর বাজার ও নলখোলা বাজার একটি জনগুরুত্বপূর্ন স্থান। জনদূর্ভোগের কথা চিন্তা করে অবৈধ ব্যবসায়িদের কাছ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সরকারি জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে সরকারি জায়গা দখল করা হয়। সরকারি জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান অভ্যহত থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ