1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ফিরেছেন বলেই দেশে গণতন্ত্র ফিরেছে : মেয়র লিটন দৌলতপুরে যুবলীগের ব্যানারে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত বাঘায় র‍্যাবের হাতে অস্ত্রসহ আটক ১ শেখ হাসিনার ৪২তম  স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ। টাঙ্গাইলের নাগরপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন। সখীপুরে সড়ক সংস্কার ও ছাত্রী উত্ত্যক্ত বন্ধের দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। টাঙ্গাইলে বছর না যেতেই ভেঙে ফেলতে হলো প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। নাগরপুরে তথ্য অধিকার আইন বিষয়ক প্রশিক্ষণ।  রাজশাহী জেলার শ্রেষ্ট  সাব-ইন্সপেক্টর নির্বাচিত বাঘা থানার এস আই তৈয়ব  রাজধানীর ১৯ স্থানে বসবে পশুর হাট।

রাজশাহীতে শিক্ষিকা মায়া রাণীর হত্যার দায় স্বীকার করলো মিলন

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২ অক্টোবর, ২০২১

রাজমাহী ব্যুরোঃ রাজশাহীর মুন্নুজান স্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মায়া রাণী ঘোষকে হ্ত্যার দায় স্বীকার করেছেন গ্রেপ্তারকৃত আসামী মিলন শেখ। ২ অক্টোবর (শনিবার) দুপুরে রাজশাহী মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এম.এম-১ জনাব মাহবুবু্ুর রহমান এর আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে হত্যার দায় স্বীকার করেন তিনি।

জবানবন্দি গ্রহণ শেষে বিচারক তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। হত্যাকারি মিলনের স্বীকারুক্তিতে জানাযায় সেদিন স্বর্ণালঙ্কারের জন্য শিক্ষিকা মায়া রাণী ঘোষকে হত্যা করেছিল।

সুত্রমতে জানাযায়,গত ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখে নিজ বাড়িতেই মন্নুজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মায়া রাণী ঘোষ (৬৮) হত্যাকাণ্ডের ১২ ঘণ্টার মধ্যেই হত্যা কান্ডের মুল আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ।

তার কাছ থেকে মায়া রাণীর শরীর থেকে খুলে নেওয়া স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। গ্রেপ্তারকৃত আসামী নগরীর ফুদকিপাড়া এলাকার কালু শেখ এর ছেলে ও মন্নুজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র মিলন শেখ (৪০)।

পরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মজিদ আলী এ ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন। সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মজিদ আলী বলেন, মায়া রাণীকে হত্যা করে তার গলার চেইন, হাতের বালা ও কানের দুল নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন মিলন। এ জন্য কয়েকদিন থেকেই তিনি বাড়ি ভাড়া নেওয়ার নাম করে মায়ার বাড়ি যান। মঙ্গলবারও তিনি মায়ার বাড়ি যান।

এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে মিলন তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল ফোন নিয়ে যান।ঘটনার পর থেকেই এর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিকে খুঁজার কাজ শুরু করেছিল পুলিশ। তারপর ঐ দিন রাতেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার বাড়ি থেকে সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়া একটি মার্কেটের ছাদে তার দেখানো জায়গা থেকে মায়া রাণীর মোবাইল ফোন ও সীমকার্ড উদ্ধার করা হয়। পরে মিলনকে মায়া রাণী হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয় এবং মিলনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

আদালতে ১৬৪ ধারায় আসামী মিলনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির কথা স্বীকার করে বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মন বলেন, মিলন শেখ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এছাড়া স্বর্ণালঙ্কার ও টাকার জন্য শিক্ষিকাকে হত্যা করেছে বলে জানান থানার এই কর্মকর্তা।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ