1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
দশমিনায় ইউএনও করোনায় আক্রান্ত লক্ষ্মীপুরে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কার্য নির্বাহী সংসদের সভা অনুষ্ঠিত রাজশাহীতে ভোট কারচুপির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন : চাই ভোট পুনর্গণনা দশমিনায় আশ্রায়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের শীতে কাঁপে হাড় দৌলতপুরে বৈদ্যুতিক সট সার্কিট থেকে আগুনঃ পুড়ে ছাই আসবাবপত্র টাঙ্গাইলে ৪ কেজি গাঁজা সহ গ্রেফতার মাদক সম্রাট জহুরুল উত্তরাঞ্চলে রবি মৌসুমে আলুর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা ফরিদপুরের মধুখালী থেকে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১ মেহেরপুরের গাংনীর পল্লীতে মধ্যরাতে অগ্নিকান্ড! ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি লক্ষ্মীপুরে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ৫ হাজার অসহায় মানুষের মাঝে শীতার্তের কম্বল বিতরণ করা হয়েছে

রাজশাহীতে সামন্য বৃষ্টিতেই ৪ তলা ভবন ধ্বস, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২০ জুন, ২০২১

রাজশাহী ব্যুরো চীফঃ রাজশাহী নগরীর খ্রিষ্টানপাড়া মোড় সংলগ্ন নির্মাণাধীন ৪ তলা একটি ভবন ধ্বসে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। রবিবার (২০ জুন) দুপুর আনুমানিক ৩টার দিকে মহানগরীর কয়েরদাঁড়া ( মথুরডাঙ্গা) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হওয়ার খবর না পাওয়া গেলেও ভবনের নিচে ও আশেপাশে থাকা বেশ কয়েটটি প্রাইভেট কার চাপা পড়ে ধ্বংস হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা ও ভবন ধ্বসের পর উদ্ধার কাজে নিয়োজিত ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ভবনটি নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করার কারণেই এমন ঘটনা ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের রাজশাহী সদর স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবদুর রউফ জানান, ভবনটির দৈর্ঘ্য প্রায় ৮০ ফুট।

প্রস্থে ছিল ৪০ ফুট। চারতলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছিল। ওপরে আরেকতলা তোলার জন্য বিম ওঠানো হয়েছিল। অত্যন্ত নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছিল। এ কারণে ভবনটি ধ্বসে পড়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ভবনের নকশা অনুমোদন ছিল কিনা, কোন ধরনের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার হয়েছিল- এসকল বিষয় তদন্ত করে দেখা হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ভবনটির মালিক ছিলেন আক্তারুজ্জামান বাবলু নামের এক ব্যবসায়ী ও সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার। প্রায় এক বছর আগে তিনি মারা গেছেন। এখন ভবনের মালিকানায় আছেন তার ছোট ভাই নুরুজ্জামান পিটার। তবে আক্তারুজ্জামান বাবলুর মৃত্যুর পর থেকে ভবনটিতে আর কাজ হয়নি।

ভবন মালিকের ব্যবস্থাপক তোফাজ্জল হোসেন মডি দাবি করেন, ভালো মানের সামগ্রীই ব্যবহার করা হয়েছিল। তিনি বলেন, ভবন আগেই নির্মাণ করা হয়েছিল। কিন্তু কেউ থাকত না।’ রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (আরডিএ) কাছ থেকে এই ভবনটির নকশার অনুমোদন নেয়া হয়েছিল কিনা তা তিনি জানেন না।

ভবনটির নকশা অনুমোদন ছিলো কিনা তা জানতে আরডিএ.র অথরাইজড অফিসার মুহা. আবুল আজাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ