1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
সখীপুরে সড়ক সংস্কার ও ছাত্রী উত্ত্যক্ত বন্ধের দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। টাঙ্গাইলে বছর না যেতেই ভেঙে ফেলতে হলো প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। নাগরপুরে তথ্য অধিকার আইন বিষয়ক প্রশিক্ষণ।  রাজশাহী জেলার শ্রেষ্ট  সাব-ইন্সপেক্টর নির্বাচিত বাঘা থানার এস আই তৈয়ব  রাজধানীর ১৯ স্থানে বসবে পশুর হাট। আগামী ২ বছরের মধ্যে পৃথিবী হবে ডাটা নির্ভর : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী। নাগরপুরে ভোক্তা অধিকারের অভিযানে ৪৭৫২ লিটার তেল জব্দ ও ন্যায্য মূল্যে তেল বিক্রির নির্দেশ মণিরামপুরে মাদ্রাসার নির্মাণাধিন ৪তলা ভবনের ছাদ থেকে কাঠ পড়ে শিক্ষার্থী আহত সরকারকে ব্যর্থতার দায় নিয়ে পদত্যাগ করা উচিত, বিএনপি চেয়ারপার্সন উপদেষ্টা মিনু রাজশাহীর পবায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরে গেল তিনটি প্রাণ 

রাজশাহীতে হত্যার চার ঘন্টা পর আসামী গ্রেফতারঃ স্বস্থির নিশ্বাস এলাকাবাসির

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১

রাজশাহীতে হত্যার চার ঘন্টা পর আসামী গ্রেফতারঃ স্বস্থির নিশ্বাস এলাকাবাসির


মাজহারুল ইসলাম চপল, ব্যুরো চীফঃ শনিবার সন্ধ্যা ৭ টায় নগরীর হেতম খাঁ বিদ্যুৎ ভবনের সামনে এক আনসার বাহিনীর বাস্কেটকবল খেলোয়াড় ও জুনিয়র কোচ মিজানুর রহমানকে ( ৩৫) ছুরিকাঘাতে খুন করে একই এলাকার মাদকসেবী মদনের ছেলে মাধব । এরপরপরেই এলাকা থেকে গাঁ ঢাকা দেয় খুনী মাধব।

ঘটনা সূত্রে জানাযায়, রাজশাহীতে সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে মিজানুর রহমান (৩৫) নামের এক বন্ধুকে ছুরিকাঘাত করে বসে আরেক বন্ধু মাধব। এতে মিজান গুরুত্বর আহত হলে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মিজানকে মৃত ঘোষনা করে। এরপর বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নিবারণ চন্দ্র বর্মন দ্রুত ঘটনাস্থলে হাজির হয়।

তিনি উত্তেজিত জনগনকে শান্ত করেন এবং আসামী গ্রেফতারের প্রতিশ্রুতি দেন। শুরু করেন চিরুনি অভিযান। অবশেষে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় রাত ১১ টায় অর্থাৎ চার ঘন্টা পরে রাজশাহীর পুঠিয়া বাজার থেকে হত্যাকারি মাধবকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এতে নিহত মিজানের পরিবার শোকাহত থাকলেও আত্মীয় – স্বজনরা কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন।

এদিকে আনছার বাহিনীর খেলোয়ার মিজান খুন হওয়ার পরপরেই এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে খুনী মাধবের বাড়ী ঘেরাও করে রাখে। পরে থানা পুলিশ উত্তেজিত এলাকাবাসীকে শান্ত করার চেষ্টা করেন এবং মাধবকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার প্রতিশ্রুতি দিয়ে উত্তেজিত এলাকাবাসীকে নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আনেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নিহত মিজানের এক নিকটাত্মীয় বলেন- আমরা বোয়ালিয়া মডেল থানার প্রতি কৃতজ্ঞ। কারন আমাদের দেশে কেউ খুন হলে ঐ খুনীকে আইনের আওতায় আনতে অনেকটা সময় লেগে যায় কিন্তু বোয়ালিয়া মডেল থানার ওসি নিবারন স্যারের আন্তরিকাতায় আসামী এত দ্রুত গ্রেফতার সম্ভব হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ