1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৫:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কুষ্টিয়ায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী বাপ্পি আটক। ভেড়ামারায় জমি জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ভাই ও বোনজামাইয়ের বিরুদ্ধে মিথ্যা ডাকাতির অভিযোগ টাকার অভাবে চিকিৎসা বন্ধ কিডনি রোগে আক্রান্ত শিশু আয়শা মনির।  জুলাই মাসে হচ্ছেনা এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা বোয়ালমারীতে ট্রাকের চাপায় মা-মেয়ে নিহত ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করায়  টাঙ্গাইলের এক শিক্ষার্থীকে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ। বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর দাড়িয়ে থাকা পিকআপকে অপর পিকআপের ধাক্কা, চালক নিহত। শিক্ষক হত্যা ও লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা। বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর দাড়িয়ে থাকা পিকআপকে অপর পিকআপের ধাক্কা, চালক নিহত। দশমিনায় অবৈধ বালু উত্তোলনে তিনটি বলগেট আটক ও তিনজকে জরিমানা।

টাঙ্গাইলে শশুরের দায়ের কোপে পুত্রবধু হত্যা

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১
প্রতীক ছবি

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের নাগরপুরে শশুরের দায়ের কোপে গুরুতর আহত ছেলের বৌ অবশেষে মারা গেলেন। নবু খান (৭০) দুপুরে তার ছেলে টিক্কা খানের (৪৫) স্ত্রী হামিদাকে (৩২) পারিবারিক কাজে ব্যবহৃত দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন।

চিকিৎসারত অবস্থায় গতকাল (রবিবার) রাতে হামিদার মৃত্যু হয়। নাগরপুর উপজেলার মেঘনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানায়, নবু খানের সাথে তার ছেলের বৌ হামিদার কথা কাটাকাটি লেগেই থাকতো। নবু খান গত বৃহস্প্রতিবার দুপুরে পারিবারিক কলহের জেরে দা দিয়ে হামিদাকে কোপায়।

এতে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে, উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেণ কর্তব্যরত চিকিৎসক। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় গতকাল রাতে তার মৃত্যু হয়।

হামিদার কন্যা শিশু জানায়, তার মা গোছলের সময় তার দাদা (নবু খান) তার মাকে পেছন থেকে কোপ মারে। তার মার চিৎকারে সে কাছে গেলে তাকেও কোপানোর হুমকী দেন।

হামিদার বোন বলেন, তার বোন হামিদাকে প্রথমে পেছন দিক থেকে তার শশুর কোপ মারে এবং পরে ফিরে দেখতে গেলে তার মাথায় কোপ দিতে যায়, তখন হাত দিয়ে ফেরানোর সময় তার বাম হাতের কয়েকটি আঙ্গুল কেটে যায়। এ ঘটনার সুষ্ঠ্য বিচার চান তিনি।

এ বিষয়ে নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আনিসুর রহমান বলেন, বিষয়টি জেনে ঘটনাস্থলে পুলিশ কর্মকর্তা পাঠিয়েছি। আইনানুগ বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ