1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
সৈয়দপুরে মহিষের কলিজা জব্দ ১ জন আটক - dailynewsbangla
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করলেন আ. লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ব্যারিস্টার রাকিব বোয়ালমারীতে নুপুর হত্যা মামলার দ্বিতীয় আসামি ৪৯ দিনপর গ্রেপ্তার সালথায় বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপিত বোয়ালমারীতে রেলে কাটা পড়ে নারীর মৃত্যু প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি – আলফাডাঙ্গায়  বিএনপি  কর্মী  আটক কসবায় সাবেক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৩ লক্ষ টাকার গাছ কর্তনের অভিযোগ  সালথায় অসহায় দুঃস্থদের মাঝে জেলা পরিষদের ত্রাণ বিতরণ বোয়ালমারীতে ইউপি সদস্যকে মারধরের ঘটনায় মামলা আ’লীগ নেতা গ্রেপ্তার বোয়ালমারীতে বৌ নিয়ে মারামারির ঘটনায় ১৮ জনের নামে মামলা ৮ ডিসেম্বর দৌলতপুর পাক হানাদার মুক্ত দিবস

সৈয়দপুরে মহিষের কলিজা জব্দ ১ জন আটক

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২১
সৈয়দপুরে মহিষের কলিজা জব্দ ১ জন আটক
সৈয়দপুরে মহিষের কলিজা জব্দ ১ জন আটক

রেজা মাহমুদ, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে ভারত থেকে আনা মহিষের কলিজাসহ ১ জনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের ধলাগাছ মতির মোড় এলাকা থেকে
তাকে আটক করা হয়। তবে সরকারের আনুমোদনে বৈধভাবে আমদানি করা কলিজাগুলো বিক্রি করা হচ্ছে বলে দাবি আটককৃত ব্যাক্তির।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের বাগডোগরা গ্রামের আনোয়ারুল হকের ছেলে সাহেদ হোসেন (৩০) দীর্ঘদিন থেকে কম দামে ভারত থেকে আমদানি করা খাওয়ার অনুপযোগী মহিষের কলিজা হাটবাজারসহ শহর ও গ্রামের বিভিন্ন হোটেল বিক্রি করে আসছিল। ওইদিন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পলিশের উপ-সহকারী পরিদর্শক (এএস আই) নুর আমিনের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স আভিযান চালিয়ে তাকে উল্লেখিত এলাকা থেকে আটক করে।

এ সময় তার কাছে থাকা ১২০ কেজি কলিজা জব্দ করা হয়। পরে আটককৃত সাহেদকে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হয়। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসিম আহমেদ তার ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং জব্দকৃত কলিজা উপজেলা চত্বরে মাটিতে পুতে ফেলে ধ্বংস করেন । সাহেদ নিজের অপরাধ অস্বীকার করে জানান, চট্টগ্রাম প্রাণি সম্পদ আধিদপ্তরের অনুমোদন নিয়ে ঢাকার সিয়াম এন্টারপ্রাইজ নামের প্রতিষ্ঠান ভারত থেকে মহিষের কলিজা আমদানি করে।

আমি একটু লাভের আশায় আমদানিকারকের কাছ থেকে কলিজা কিনে এ এলাকায় বিক্রি করি। সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা নাসিম আহমেদ বলেন, স্থানীয় প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. রাশেদুল হক আটককৃত কলিজাগুলো পরীক্ষা করেন। পরে তার পরামর্শে কলিজাগুলোকে খাওয়ার অনুপযোগী ঘোষণা ও তা ধ্বংস করে উল্লেখিত ব্যক্তির জরিমান করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ