1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
রাসিক মেয়রের সহযোগিতায় হুইলচেয়ার পেলেন প্রতিবন্ধী জেসমিন খাতুন আসন্ন উপ-নির্বাচনে মহিলা সমর্থকদের রাসেলের পক্ষে ভোট প্রার্থনা ও পথসভা মহাদেবপুরে তথ্য অফিসের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্টিত দশমিনায় চলছে পূজা মন্ডপে প্রস্তুুতি, ব্যস্ত সময় পার করছে মৃৎ শিল্পীরা দশমিনায় ইউপি সচিব ও তথ্য সেবক এর বিরুদ্ধে জন্ম সনদে অতিরিক্ত টাকা নেয়ার অভিযোগ দৌলতপুরে বাদশাহ্ এমপি’কে বরণ করতে হাজারো মানুষের ঢল দশমিনায় তানিয়া ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় আপীল বিভাগ খুনীদের ফাঁসি বহাল উৎসবমুখর পরিবেশে নওগাঁয় আদিবাসী উড়াও সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী কারাম উৎসব পালিত চার লেন সড়ক উন্নীতকরণ কাজের উদ্বোধন করলেন রাসিক মেয়র লিটন পটুয়াখালী জেলা পরিষদ কর্তৃক স্থাপিত বীর মুক্তিযোদ্ধা ভাস্কর্য উদ্বোধন

সৈয়দপুরে মহিষের কলিজা জব্দ ১ জন আটক

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২১
সৈয়দপুরে মহিষের কলিজা জব্দ ১ জন আটক
সৈয়দপুরে মহিষের কলিজা জব্দ ১ জন আটক

রেজা মাহমুদ, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে ভারত থেকে আনা মহিষের কলিজাসহ ১ জনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের ধলাগাছ মতির মোড় এলাকা থেকে
তাকে আটক করা হয়। তবে সরকারের আনুমোদনে বৈধভাবে আমদানি করা কলিজাগুলো বিক্রি করা হচ্ছে বলে দাবি আটককৃত ব্যাক্তির।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের বাগডোগরা গ্রামের আনোয়ারুল হকের ছেলে সাহেদ হোসেন (৩০) দীর্ঘদিন থেকে কম দামে ভারত থেকে আমদানি করা খাওয়ার অনুপযোগী মহিষের কলিজা হাটবাজারসহ শহর ও গ্রামের বিভিন্ন হোটেল বিক্রি করে আসছিল। ওইদিন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পলিশের উপ-সহকারী পরিদর্শক (এএস আই) নুর আমিনের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স আভিযান চালিয়ে তাকে উল্লেখিত এলাকা থেকে আটক করে।

এ সময় তার কাছে থাকা ১২০ কেজি কলিজা জব্দ করা হয়। পরে আটককৃত সাহেদকে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হয়। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসিম আহমেদ তার ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং জব্দকৃত কলিজা উপজেলা চত্বরে মাটিতে পুতে ফেলে ধ্বংস করেন । সাহেদ নিজের অপরাধ অস্বীকার করে জানান, চট্টগ্রাম প্রাণি সম্পদ আধিদপ্তরের অনুমোদন নিয়ে ঢাকার সিয়াম এন্টারপ্রাইজ নামের প্রতিষ্ঠান ভারত থেকে মহিষের কলিজা আমদানি করে।

আমি একটু লাভের আশায় আমদানিকারকের কাছ থেকে কলিজা কিনে এ এলাকায় বিক্রি করি। সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা নাসিম আহমেদ বলেন, স্থানীয় প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. রাশেদুল হক আটককৃত কলিজাগুলো পরীক্ষা করেন। পরে তার পরামর্শে কলিজাগুলোকে খাওয়ার অনুপযোগী ঘোষণা ও তা ধ্বংস করে উল্লেখিত ব্যক্তির জরিমান করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ