1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
দৌলতপুরে মিথ্যা মামলা দেওয়ায় কাজীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন হাজিদের সেবায় সৌদি যাবেন ৫৩২ কর্মকর্তা। কাশিমপুর কারাগারে নারী হাজতির মৃত্যু। নাগরপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহ ২০২২ উদযাপন। দৌলতপুরে ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত কল্পনার ঘর করে দিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা তাসফিন আব্দুল্লাহ ইসলামী শাসনতন্ত্র দশমিনার উপজেলা শাখার সভাপতিকে ১ মাসের সাজা। দশমনিা বাউফল সড়কে ট্রলি নয়িন্ত্রণ হারেিয় চালকের মৃত্যু। ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে বিএনপি : কাদের। নাগরপুরে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র বিশেষ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। শিঘ্রই দৃশ্যমান হবে রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়

সৈয়দপুর পৌরসভা মেয়রের সালিশী আদালতে প্রশংসনীয় রায়

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১

সৈয়দপুরে পৌরসভা মেয়রের সালিশী আদালতের দেয়া একটি রায় ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছে। ওই রায়ে সম্ভ্রান্ত দুটি পরিবারের ছেলে-মেয়ের প্রায় ভেঙ্গে যাওয়া সংসার জোড়া লেগেছে। এতে সর্বস্তরের মানুষ সাধুবাদ জানিয়েছে ওই আদালতসহ পৌর পরিষদকে। গত রোববার (১৮ এপ্রিল) রায়টি দেন সালিশী বোর্ডের সভাপতি মেয়র রাফিকা আকতার জাহান।

সূত্র মতে, ৬ বছর আগে বিয়ে হয় সৈয়দপুর শহরের নতুন বাবুপাড়ার আকতার হোসেনের ছেলে রিজওয়ান আকতারের সাথে হাওয়ালদার পাড়ার মো. সালাউদ্দিনের মেয়ে আফসা নাজের। সুখে কাটছিল তাদের দাম্পত্য জীবন।

কিন্ত সম্প্রতি দাম্পত্য কলহের জের ধরে উভয়ের মধ্যে শুরু হয় সম্পর্কের টানাপোড়েন। এর প্রেক্ষিতে গত ৭ই মার্চ’২০২১ তারিখে স্বামী রিজওয়ান আকতারএক তরফা তালাক দেন স্ত্রী আফসা নাজকে। ওই তালাকের একটি কপি ডাকযোগে অবহিত করা হয় পৌরসভা মেয়রের সালিশী আদালতকে।

আদালত বিষয়টি শুনানীর জন্য গত রোববার (১৮ এপ্রিল) দু’পক্ষকে তলব করেন। ধায্যদিনে অভিভাবকদের উপস্থিতিতে বাদী ও বিবাদী জবানবন্দি নেয় আদালত। জবানবন্দিতে বাদী রিজওয়ান আকতার যে অভিযোগের প্রেক্ষিতে তালাকনামা পাঠিয়েছে সেই অভিযোগের সত্যতা পায়নি আদালত। এতে বাদীপক্ষের প্রেরিত তালাক নোটিশ অকার্যকর হিসেবে গ্রহণ করে উভয়েই স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক বিদ্যমান রাখেন আদালত।

পরে সৈয়দপুর পৌর পরিষদ আফসা নাজকে তাঁর শ্বশুড়ালয়ে পৌছে দিয়ে উভয় পরিবারের মধ্যে আত্মীয়ের সম্পর্ক বজায় রাখার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ