1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
যশোরের শার্শার নাভারণে জাতীয় সড়ক দিবস ২০২১ পালিত হয়েছে দশমিনায় ধর্ষনের অভিযোগে আটক ২ ময়মনসিংহে ১৪ কেজী গাঁজা ও ২০ গ্রাম হেরোইনসহ কুখ্যাত ব্যাবসায়ী রতন গ্রেফতার সংবাদ প্রকাশের পর শার্শায় ভিজিডির চাউল আত্বসাতের তদন্ত শুরু উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা শেখ রাসেল দিবসে রাসিকের বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও ব্যাতিক্রমি আয়োজন ভাংগা থেকে র‍্যাবের হাতে ইয়াবাসহ বিকাশ প্রতারক চক্রের ২ সদস্য আটক শেখ রাসেল দিবস উদযাপন করলেন পটুয়াখালী মেয়র মহিউদ্দিন আহম্মেদ শার্শায় উপজেলা প্রসাশনের আয়োজনে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালিত কমলগঞ্জে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে, আলোচনা সভা ও পুরুষ্কার বিতরনী অনুষ্টিত

মেডিকেলে চান্স পেয়েও ভর্তি অনিশ্চিত তিন শিক্ষার্থীর

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১
অর্থাভাবে ভর্তি হতে পারছে না অদম্য মেধাবী রাব্বী হোসেন, অতুল চন্দ্র বর্ম্মন ও রিফাত আহমেদ।

রেজা মাহমুদ, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি: মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় স্থান হলেও অর্থাভাবে ভর্তি হতে পারছে না অদম্য মেধাবী রাব্বী হোসেন, অতুল চন্দ্র বর্ম্মন ও রিফাত আহমেদ। এ তিনজন শিক্ষার্থীই নীলফামারীর সৈয়দপুর বিজ্ঞান কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে।

ভর্তির অর্থ যোগাতে এখনও তারা ঘুরছে অন্যের দ্বারে দ্বারে। রাব্বী হোসেন শহরের নতুন বাবুপাড়ার আব্দুর রশিদ ও ফাহমিনা আক্তার লাইলী তৃতীয় সন্তান। বাবা একজন অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী। মা গৃহিনী। পেনসনের টাকায় জোড়াতালি দিয়ে চলে সংসার। এসএসসি ও এইচএসসি তে গোল্ডেন এ প্লাস পাওয়া শিক্ষার্থী ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস’এ ভর্তি পরীক্ষায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন।

কিন্তু অর্থাভাবে এখনো ভর্তি হওয়া হয়নি তার। অতুল চন্দ্র বর্মন পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার সাকোঁয়া ইউপির ছত্র শিকারপুর গ্রামের নব কুমার বর্মন ও বাতাসি রানীর দ্বিতীয় সন্তান। বাবা কাঠ মিস্ত্রির কাজ করে যে অর্থ উপার্জন তা দিয়ে কোন রকমে চলে সংসার। বাবা-মা দু’জনই নিরক্ষর হলেও একমাত্র ছেলে অতুল মেধায় পরিপূর্ণ।

এসএসসি ও এইচএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করে ব্যাপক সাড়া ফেলে দেন এলাকায়। বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পাওয়ায় তার লালিত স্বপ্ন পূরন হয়েছে। কিন্তু ভর্তির টাকা যোগান দিতে না পারায় হয়ে গেছে স্লান সে স্বপ্ন। দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার আদর্শপাড়া গ্রামের আলতাফ হোসেন ও রুবিনা বেগমের ছোট সন্তান রিফাত আহম্মেদ।

বাবা দিনমজুর। কোনো মতে সংসার চলে। দুই ছেলের মধ্যে ছোট এ ছেলে এসএসসি ও এইচএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করে। এবারে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় রংপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পাওয়ায় খুব খুশি। তবে স্বল্প আয়ের দরিদ্র এই শ্রমিক ভর্তির টাকা যোগান দিতে আজ দিশেহারা। ভর্তি হওয়ার টাকা জোগাড় করতে না পারলে রিফাতের স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে।

সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম আহম্মেদ ফারুক জানান, এবার এ কলেজ থেকে শতভাগ পাসসহ ৪০ জন দেশের বিভিন্ন মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। এদের মধ্যে কয়েকজন হতদরিদ্র পরিবারের সন্তানও রয়েছে যারা অত্যন্ত মেধাবী এবং অসম্ভব পরিশ্রমী।

কলেজে পড়ার সময় আমরা তাদের বিভিন্নভাবে সাহায্য করেছি। এসব প্রতিভাকে বিকশিত করতে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ