1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
মাউশি’র নির্দেশনা উপেক্ষা করে শাহদৌলা সরকারি কলেজে ছুটির মধ‍্যেই উদ্বোধনী ক্লাস - dailynewsbangla
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৮:৪৭ অপরাহ্ন

মাউশি’র নির্দেশনা উপেক্ষা করে শাহদৌলা সরকারি কলেজে ছুটির মধ‍্যেই উদ্বোধনী ক্লাস

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪

মাউশি’র নির্দেশনা উপেক্ষা করে শাহদৌলা সরকারি কলেজে তাপদাহে ছুটির মধ‍্যেই উদ্বোধনী ক্লাস

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ দেশে তীব্র তাপদাহের কারণে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাত দিন ছুটি বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। কিন্তু সরকারি ছুটির নির্দেশনা উপেক্ষা করে রাজশাহীর বাঘায় শাহদৌলা সরকারি কলেজে উদ্বোধনী ক্লাস নেওয়া হয়েছে।
রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় ২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষের রাষ্ট্রবিজ্ঞান, প্রাণিবিজ্ঞান ও উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের উদ্বোধনী ক্লাস নেওয়া হয়েছে। এতে কলেজেটির তিন বিভাগের অধিকাংশ শিক্ষক অনুপস্থিত ছিলেন।
জানা যায়, ঈদের ছুটি শেষে ২১ এপ্রিল থেকে ক্লাস শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু দেশে তীব্র তাপপ্রবাহের কারনে শিক্ষার্থীদের ঝুঁকির বিষয়ে বিবেচনা করে আগামী ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত (এক সপ্তাহ) পৃথকভাবে
ছুটি বর্ধিত করেন
মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়  প্রজ্ঞাপন জারি করেন। ছুটির প্রজ্ঞাপনটি কলেজের ফেসবুক পেইজেও পোষ্ট করা হয়েছে। এর আগে ১৯ এপ্রিল শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনে উদ্বোধনী ক্লাসের বিষয়ে ম্যাসেজ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ছুটির প্রজ্ঞাপন জারির পরে শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনে কোন মেসেজ  না দিয়ে উদ্বোধনী ক্লাস নেওয়া হয়ছে। ছুটির প্রজ্ঞাপন বিষয়ে জানার পর, তিন বিভাগের অধিকাংশ শিক্ষক  উপস্থিত ছিলেন না। তিন বিভাগের ৪৮ থেকে ৫০ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।
এ বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থী শাওন আহমেদ, রুমন আলী, শাকিব হোসেন, মুসরেকুল ইসলাম, বুলবুল আহমেদ বলেন, গত ১৯ এপ্রিল মোবাইল ফোনে ম্যাসেজ দেওয়া হয়েছিল। পরে ছুটির বিষয়ে কোন মেসেজ তারা পাননি। আগের মেসেজের ভিত্তিতে ছুটির মধ্যে উদ্বোধনী ক্লাসে অংশ গ্রহণ করেছেন। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ক্লাস চলেছে।
এ বিষয়ে কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রভাষক আমিরুল ইসলাম বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ব ঘোষনা মোতাবেক উদ্বোধনী ক্লাসের বিষয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সেই মোতাবেক উপস্থিত শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদ্বোধনী ক্লাস নেওয়া হয়েছে। তবে প্রজ্ঞাপন অনুয়ায়ী শিক্ষার্থীদের ক্লাসে আসার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মুসলিমা খাতুন বলেন, অধ্যক্ষের নির্দেশে কলেজে এসেছিলাম। উদ্বোধনী ক্লাসে শিক্ষার্থী উপস্থিত থাকলেও শিক্ষকের উপস্থিত ছিল কম।
এ বিষয়ে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবু বক্কর সিদ্দীক বলেন,২০ এপ্রিল ছুটির প্রজ্ঞাপন বিষয়ে অবগত হয়েছি।  কলেজের ফেসবুক পেইজেও শেয়ার করা হয়েছে। কিন্তু আগে থেকে ক্লাসের বিষয়ে প্রস্তুতি  নেওয়া ছিল  এবং মেসেজ দেওয়া হয়েছিল বিধায়  শিক্ষার্থীরা কলেজে চলে আসে।  উদ্বোধনী ক্লাস নেওয়া হয়েছে।  প্রজ্ঞাপনের নির্দেশনা মতে আগামী ২৭ এপ্রিলের পর যথাযথভাবে ক্লাস পরিচালিত হবে।
এ বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গনসংযোগ দপ্তরের পরিচালক মো. আতাউর রহমান বলেন, তীব্র তাপদাহের কারনে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ  সিদ্ধান্ত গ্রহণ কল্পে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত কলেজ সমূহের পরীক্ষা ছাড়া সকল ক্লাস কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এরপরও যদি কেউ ক্লাস কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকেন, তাহলে  বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ