1. zillu.akash@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@dailynewsbangla.com : Daily NewsBangla : Daily NewsBangla
যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন করে মৃত্যু ঘটানো মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার  - dailynewsbangla
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন

যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন করে মৃত্যু ঘটানো মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার 

ডেইলী নিউজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৩ মে, ২০২৪

যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন করে মৃত্যু ঘটানো মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার 

(বগুড়া) প্রতিনিধি:  বগুড়া জেলার কাহালু থানার মামলা নং-২১২/০৮, জিআর নং-৫৩/০৮ (কাহালু) এর যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন করে মৃত্যু ঘটানোর মামলায় মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী জিএমপি গাজীপুর এলাকায় অবস্থান করছে। এই গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১২ মে ২০২৪ তারিখ রাত্রি অনুমান ২৩.০৫ ঘটিকায় র‌্যাব-১২, সিপিএসসি, বগুড়া ও র‌্যাব-১, সিপিএসসি, পোড়াবাড়ী, গাজীপুর এর যৌথ অভিযানে উক্ত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক (৫৫), পিতা- মোঃ আশরাফ আলী প্রাং, সাং- গোয়াল পাড়া, থানা- কাহালু, জেলা- বগুড়াকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃত আসামী গত ২৪/১২/২০০৭ সালে তার স্ত্রীকে ৪০,০০০/- টাকা যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন করে শ্বাসরোধে মৃত্যু ঘটায়। এ ঘটনায় কাহালু থানায় প্রাথমিকভাবে একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়। পরবর্তীতে ময়নাতদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিতে ও ভিকটিমের ভাই মোঃ হাফিজুর রহমানের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে কাহালু থানায় একটি হত্যা মামলা রুজু হয় যার নং-১৫, তারিখ-২৯/০৩/২০০৮ খ্রি. ধারা-২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী/০৩) এর ১১(ক)/৩০। মামলাটির বিচারকার্য শেষে বিজ্ঞ আদালত ২০২১ সালের আগস্ট মাসে ধৃত আসামীর মৃত্যুদন্ড সাজার আদেশ প্রদান করেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, এই মামলায় ধৃত আসামী ০৫ বছর জেল খেটে জামিনে বের হয় এবং আবারো বিয়ে করে ছদ্মবেশে আত্মগোপন করে সংসার করতে থাকে। ধৃত আসামী গ্রেফতার এড়াতে সবার অজান্তে গাজীপুর এলাকায় ছদ্মবেশে অটো রিক্সা চালাতো। এছাড়াও ধৃত আসামী মামলার সাজা এড়াতে স্থানীয় আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশী হতে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে বিভিন্ন কৌশলে দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে ছিলো। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য কাহালু থানা, বগুড়ায় সোপর্দ করা হবে। র‌্যাবের সাহসী অভিযানের মাধ্যমে এই গ্রেফতারের ফলে আইনের শাসন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ